Thursday, September 15, 2011


১৫ সেপ্টেম্বর ২০১১


৭) অসুস্থ (১)
আমরা অনেক বাড়ি দেখতে পাই। সে বাড়ির নিচে কেউ দল বেঁধে বোকা খাবার খায়। আমরা এগিয়ে যাই, কিছু আরো বোকা ল্যাম্পপোস্টে বেঁধে রাখা খরগোশ শিকারি চাবুক চালায় প্রাণীদের বুকে। যখন রক্ত আমাদের গায়ে এসে ছিটে লাগে পোষাকে বিরক্ত আরো এগিয়ে যাই। পা দুটো দিনের পর দিন ক্রমে ভারী সব রক্ত জমে লোহা। আমাদের রাগ হয়। প্রতিটা মোড়ে ছড়িয়ে থাকে শিশুদের কাটা আঙুল। নখ ছোটো। এখনো রক্ত শুকিয়ে যায় নি সম্পূর্ণ তাই ভিজে ভিজে লাগে হাতে। কিছু নেই এই বেঁচে থাকায় তবু জীবন চাই না সেটা মিথ্যে।

৮) অসুস্থ (২)
কি হবে আমার ফুলের তোড়ায় যেদিন কফিন আমার ঢাকছে আমায় অন্তহীনের নৃশংস কালো কালো? কি দেখছেন তাকিয়ে এখানে গহ্বর আছে প্রাচীনতম। ছোঁবেন না আমি অস্পৃশ্য। আমি রক্ত দেখি রোজ। ভালো লাগে ওই রজনীগন্ধা সাদা যদি আমার রক্ত ছুঁয়ে দেখে তাহলে বিধবাও যেন লাল পাড় আহা চুরমার হোক সব কিছু। আমি অকারণে পাশ ফিরি কফিনে যেখানে একা থাকার-ই কথা। আমার প্রশ্ন করতে হাসি পায় তাই চিহ্নগুলোও বোকার মত লাগে। আমায় যেটা ভাবছেন আমি বা আমার কফিনের ফুল কেউ সেটা নই।
অনুপম রায়

4 comments:

xxx said...

Besi kichhu likhbo na...Shudhu ekti kathai likhbo...
katha-ta holo : Daaaaaaaaarrrruuuunn!!

Sanchita said...

Apoorbo.. sotti jeebon koto damee othocho koto mulyoheen hoe porechhe..aamra sobai aaj asustho, amader sobar mone ekhon ek durarogyo byadhi...too good... tobe abossoi bhabna ta ekantoi amar...jeebon boroi prio, tobu ta kokhon nibhe jabe ke bolte pare!

sabya said...

রক্ত, কাটা আঙ্গুল ইত্যাদি আমি নিজে লিখতে চাইবো না । চাবুক বুকে, এগুলো নিয়ে একটু সাবধান হতে চাইবো । সামহাও তোর হাতে কিন্তু সব মানিয়ে যায় -- কী করে ? (এই পোস্ট-টা দীর্ঘদিন ধরে পড়ছি, এই কথাগুলো মাথায় আসছিল, তাই লিখছিলাম না আর কী)

pushan said...

rukhotar odrishyo prachire ful r pelobota o aj sporsho kore na pasher mritodeho k? a pash theke o pash fera mane to deoal r gae lege thaka abar notun golper sondhane...
Kobi ki amar sathe sohomot poshon koren?