Wednesday, August 17, 2011


১৭ আগস্ট ২০১১

৩১) ইন্ডাকশন
তোমার দাঁতে চাপা পড়ে তোমার নিচের ঠোঁটের অংশ বিশেষ কেমন লাগে তোমায়। আমি আসলে স্পাইরালে ডিসার্টেশনের মতো তোমার প্রেমের থিসিসে নিজেকে জড়াতে থাকি ইন্ডাক্টিভ কয়েল। L( di/dt). রিয়্যাক্টান্সে প্রতিরোধ আর ডি সি তে তুমি আমি শর্ট। ক্যাপাসিটিভ মৃত্যুতে শুধু কথা কাটাকাটি, হাই ফ্রিকুউএন্সিতে কাছাকাছি আসে নইলে সব রিলেশনশিপ স্টেটাস ওপেন। আমি এইসব কারণেই তোমাকে ভালোবাসি।

৩২) এই বলে
এই বলে আমি আর এই মাসে কবিতা লিখব না। এই মাসে আমি বিগত এক শতাব্দীর ক্লান্তি ভুলতে পেরেছি অনেকটাই। অনেক কারণে দোকানে গেলে তোমাকে কিছু কিছু দেখতে পাই অকারণে আমি কত বাক্য রচনা করি তোমাকে পরাবো বলে (এটা বানান ভুল নয়)। সেই ছেপেছে ভূত চেপেছে নামছে না কেউ, কাকিমা দোহাই আপনার পড়বেন না। এবার আমি ঘুমের আগে তোমার চুলে ভেজাই আমার আঙুল আজকে ১০/১০। তুমি এ পাশ ফিরে ঘুমোও।

অনুপম রায়

10 comments:

Sanchita said...

Induction, calculus... differential equation bhalobasate... anobodya.. electric circuit e prem ke bhaba .. dwiteeyo kobita ta kichhu bolar nei...nijer monei hese jachchhi, oi ekta 'কাকিমা দোহাই আপনার পড়বেন না'.. puro kobitar onno line bhulie diechhe...১০/১০...egulo jodi prolap hoi sei prolap পড়ার jonya baar baar asbo..

Aryanil Mukhopadhyay said...

ইন্ডাকশন চমৎকার! মজা বজায় থেকেছে তবু টোন সিরিয়াস। বৈদ্যুতিন বিজ্ঞানের ভাষায় প্রেমের কবিতা লেখা মুন্সীয়ানার পরিচায়ক। স্বাগতা দাশগুপ্ত কিন্তু এইরকম ইলেকট্রিকাল সার্কিট বা ইলেকাট্রনিক সায়েন্সের ভাষার মাধ্যমে শারীরিক প্রেমের কবিতা লিখছে। সম্প্রতি।

আমার অবশ্য Roget's Vibrating Spiral কে ছেলেবেলা থেকেই মনে হতো রাবীন্দ্রিক দর্শনের নমুণা - জীবন-মৃত্যুর অনন্ত ক্রমিকতা। এসব বললে অবশ্য ইয়ার-দোস্তরা তাড়া করতো। :-)

Anupam Roy said...

@ sanchita - apnar asombhob khomota, sob lekha eshe pore jaan. ashonkhyo dhanyabad.
@ aryanil da - ha ha - tumi aro complicate korchho byapar ta.

Sanchita said...

অনুপম আত্মার টানে মনের খিদে মেটাবার প্রয়াসে লেখা পড়তে আসি। ধন্যবাদ তো তোমাদেরই প্রাপ্য। বিঞ্জানকে ও ধন্যবাদ ।

Sanchita said...

Roj ekbaar kore haana di... asha kori Siliguri theke ferar por besh kichhu lekha pabo karon ekta safar onek sristir soochona kore...

Anindya Ray said...

"Ei Bole" kobita ta amar besh legeche.

antarleena said...

খুব জানতে ইচ্ছে করছে আপনার সাম্প্রতিক প্রতিটা লেখা কে enumerate করার কারণ টা । প্রথম লেখা টা থেকে পড়ে কিছুতেই ঠাহর করতে পারলাম না যে সব কটা লেখা ই এক-ই সিরিজের উদ্দেশ্যে কি না । আর সব লেখা কেই no title রাখা কি পাঠক কে ছবি আঁকার সহযোগিতা , না কি শুধুই খেয়াল । আপনার blogger এর নামটা কিন্তু বেশ স্বার্থক । তা নামকরণ টা কাকে মনে রেখে - Syd Barret , David Gilmour না Roger Waters ?

আর হাঁ সত্যি-ই - 'দেবতা যতি উলটে যায় ফুল-সার্কল হবে' ।

ইতি,
গুনমুগ্ধ পাঠিকা

Anupam Roy said...

@ antarleena - ei kobita series ta ektu adbhut bodhoy. kono ek bishoy nei thik-i kintu kichhu ekta jinish barbar ghure ghure ashe. Eti 32-ti kobita-r ekta series. ami apatoto thamiyechhi. kintu protyek ti kobita-r title achhe. bhalo thakben.

pushan said...

Nije 1somoy induction r chokrobuhe ghure beriechi...inductive hote cheye..kintu amar mon ta induced hoe onno kothao voltage r jotil jinish ta k attosomorpon korate badhyo koralo...darun..darun...
Acha..DC nie mane bisudhyo DC nie kichu lekha jay na?ashole DC k kamon jano bratyo lage..jodio sei sober mul..

Birdie said...

amar ei sahitya r bijnan er melbondhin ti khub pochhondo.
anker khata gantir moto.
"ক্যাপাসিটিভ মৃত্যুতে শুধু কথা কাটাকাটি, হাই ফ্রিকুউএন্সিতে কাছাকাছি আসে নইলে সব রিলেশনশিপ স্টেটাস ওপেন। আমি এইসব কারণেই তোমাকে ভালোবাসি। "

asadharon